ফেনীতে সড়কে চাঁদাবাজির দায়ে দুই ভাইসহ ৮ জন কারাগারে

Passenger Voice    |    ০৩:৫৫ পিএম, ২০২৪-০৬-০৯


ফেনীতে সড়কে চাঁদাবাজির দায়ে দুই ভাইসহ ৮ জন কারাগারে

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার বিভিন্ন সড়কে লাঠি হাতে পরিবহন থামিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটজনকে আটক করেছে র‍্যাব-৭। রোববার (৯ জুন) দুপুরের দিকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়। অভিযুক্তদের কাছ থেকে চাঁদা তোলার রসিদ বই ও নগদ ৪৯ হাজার ৮০৫ টাকা জব্দ করা হয়।

আটকরা হলেন- সোনাগাজীর উত্তর চরচান্দিয়া এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে মো. জসিম উদ্দিন (৩০), মির্জাপুর গ্রামের আব্দুস শুক্কুরের ছেলে মো. এমরান হোসেন (৩৬), চরগনেশ এলাকার মৃত ফজলুল হক চৌধুরীর দুই ছেলে একেএম মাইনুল হক চৌধুরী (৩৭) ও একেএম মোফাজ্জল হক চৌধুরী (৪৮), পূর্ব চরগনেশ এলাকার মো. হাবিব উল্ল্যাহর ছেলে শহিদুল ইসলাম (৩৪), তুলাতুলী গ্রামের মৃত সিদ্দিক আহম্মদের ছেলে নুর করিম (২৭), পূর্ব সুজাপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সালামের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৪২) এবং রামচন্দ্রপুর গ্রামের করিমুল হকের ছেলে রবিউল হক (২৯)।

র‍্যাব জানায়, শনিবার (৮ জুন) বিকেল থেকে সোনাগাজীর ডাকবাংলা, কলেজ রোড এবং জিরো পয়েন্ট সড়কে বিভিন্ন পরিবহন চালকদের কাছ থেকে তারা অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করছিল। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাবের একটি দল অভিযান চালিয়ে চাঁদাবাজির সময় আটজনকে আটক করে।

ফেনীস্থ র‍্যাব-৭ এর কোম্পানি অধিনায়ক মোহাম্মদ সাদেকুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন ধরে সোনাগাজীর বিভিন্ন সড়কে পরিবহন চালকদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে জোরপূর্বক অবৈধভাবে ভুয়া রসিদ ও বিভিন্ন ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে চাঁদাবাজি করার কথা স্বীকার করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সোনাগাজী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোনাগাজী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুদ্বীপ রায় ঢাকা পোস্টকে বলেন, আজ দুপুরের দিকে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।