সিসিটিভি ফুটেজ এবং ‘Hello CMP’ অ্যাপ

"আমার গাড়ি নিরাপদ" সেবার সহায়তায় মুখে হাসি ফুটল বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার্থী আরিয়ানের

Passenger Voice    |    ০১:৩৪ পিএম, ২০২৪-০৫-১৫


জনবান্ধব পুলিশিংয়ের মাধ্যমে জনগণকে সেবা প্রদান বাংলাদেশ পুলিশের অন্যতম লক্ষ্য। বলছিলাম বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার্থী মোহাম্মদ ফাতির ইশরাক আরিয়ানের ট্রলি ফিরে পাওয়ার গল্প। 

সদ্য এইচএসসি পাশ করা শিক্ষার্থী মোহাম্মদ ফাতির ইশরাক আরিয়ান (১৯) নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা শেষে গত ১১ মে (শনিবার) বিকাল আনুমানিক ৫.৩০ ঘটিকায় বাসযোগে পাহাড়তলী থানাধীন অলংকার মোড়ে এসে পৌঁছান। অলংকার মোড় থেকে সিএনজিযোগে খুলশী থানাধীন লেকভিউ আবাসিক এলাকাস্থ আত্মীয়ের বাসায় বিশ্রামে যান। কিছুক্ষণ বিশ্রাম নেওয়ার পর খুলশী কনভেনশন সেন্টারের সামনে থেকে অপর এক সিএনজিযোগে ঝাউতলাস্থ অপর এক আত্মীয়ের বাসায় যান। সেখান থেকে পুনরায় উক্ত সিএনজিযোগে রাত ৮ ঘটিকায় আকবরশাহ্ থানাধীন তোতন হাউজিংয়ে এসে নেমে যান। সিএনজি থেকে নামার কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি বুঝতে পারেন, নগদ ১২,০০০ টাকা, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন কার্ড, বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিপরীক্ষার প্রবেশপত্র এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র সমেত ট্রলিব্যাগটি সিএনজির পেছনেই ফেলে এসেছেন। উক্ত বিষয়ে তিনি আকবর শাহ্ থানায় সাধারন ডায়েরি করেন। 

উক্ত ডায়েরি লিপিবদ্ধ করার পর সিএমপির পশ্চিম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার নিহাদ আদনান তাইয়ানের সার্বিক দিক-নির্দেশনায়, এডিসি স্পিনা রানী প্রামাণিক ও পাহাড়তলী জোনের এসি মোঃ মঈনুর রহমানের তত্ত্বাবধানে আকবার শাহ্ থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম রব্বানীর নেতৃত্বে আকবরশাহ্ থানার এসআই এইচ এম ওয়াহিদুল্লাহ, এসআই মোঃ মহসিন, এএসআই এনামুল হক, এএসআই মোঃ লাল মিয়াদের সমন্বয়ে একটি আভিযানিক টিম গঠন করা হয়। উক্ত আভিযানিক টিম ঘটনাস্থলসহ অন্যান্য প্রাসঙ্গিক একাধিক সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করে সিএনজি নম্বর শনাক্ত করেন। তারপর হ্যালো সিএমপি অ্যাপের আমার গাড়ি নিরাপদ সেবার ডেটাবেইজের মাধ্যমে সিএনজির মালিক এবং ড্রাইভারের তথ্য সংগ্রহ করেন। অভিযোগপ্রাপ্তির ২৪ ঘন্টার মধ্যেই মোহাম্মদ ফাতির ইশরাক আরিয়ানের গুরুত্বপূর্ণ মালামালের ট্রলিব্যাগটি উদ্ধার করেন এবং তাকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়, শিক্ষার্থী মোহাম্মদ ফাতির ইশরাক আরিয়ান অনেক বড়ো বিপদ থেকে বেঁচে গেলেন উল্লেখ করে বাংলাদেশ পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।


প্যা/ভ/ম