রেলের আওতায় আসছে মুজিবনগর-মেহেরপুর

Passenger Voice    |    ১২:৪০ পিএম, ২০২২-১০-০৪


রেলের আওতায় আসছে মুজিবনগর-মেহেরপুর

অবশেষে রেল সংযোগের আওতায় আসছে ঐতিহাসিক মুজিবনগর ও মেহেরপুর। ৫৭ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণসহ মোট ব্যয় হবে ২ হাজার ৬০ কোটি টাকা। এরইমধ্যে ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে রেলপথ স্থাপনের সমীক্ষা ও নকশার কাজ শেষ হয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত মেহেরপুরের মুজিবনগর। যোগাযোগ ব্যবস্থা ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে এখানে রেল সংযোগের দাবি দীর্ঘদিনের। অবশেষে পূরণ হতে চলেছে স্থানীয়দের সেই দাবি।

গেল জুনে শেষ হয়েছে রেললাইন স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাই। প্রায় ৪২১ একর জমি অধিগ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থেকে মুজিবনগর হয়ে মেহেরপুর শহর পর্যন্ত হবে ৫৭ কিলোমিটার রেললাইন। দর্শনা, বাস্তোপুর, কানাইডাঙ্গা, মুজিবনগর, মোনাখালী ও মেহেরপুরে থাকবে ৬টি স্টেশন।

স্থানীয়রা বলছেন, রেল সংযোগ চালু হলে মেহেরপুরের কৃষিপণ্য পরিবহন সহজ হবে। মুজিবনগরে বাড়বে পর্যটক, যা মেহেরপুরের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

স্থানীয়রা জানান, “আমাদের কৃষিপণ্য শহরে যেতে পারবে। অল্প খরচেই লাভের আশা করতে পারছি। দূর-দূরান্ত থেকে মুজিবনগরে আসা এবং এখান থেকে ঢাকা যাওয়ার সুযোগ বেড়ে যাবে।”

২০১১’র ১৭ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মেহেরপুরে রেললাইন নির্মাণের ঘোষণা দেন। ২০১৮ সালে ১২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা ব্যয়ে সম্ভাব্যতা যাচাই ও নকশা তৈরির প্রকল্প হাতে নেয় বাংলাদেশ রেলওয়ে। 

 

প্যা.ভ/তা